বুধবার, ০৮ জুলাই ২০২০, ০৮:৫৬ অপরাহ্ন

মৃত ব্যক্তির রিপোর্ট পজেটিভ আসায় দুই জায়গায় লকডাউন

মোহনগঞ্জ প্রতিনিধি
  • আপডেট টাইম : বুধবার, ১৩ মে, ২০২০
  • ২১৯ বার পঠিত

নেত্রকোনা জেলার মোহনগঞ্জ উপজেলার গৌরাঙ্গ মৃত্যুর পর পজিটিভ রিপোর্ট আসায় পৌর শহরের রাউৎ পাড়া ও গাগলাজুর চৌড়াপাড়ায় লক ডাউন করা হয়েছে।

করোনা আক্রান্ত হয়ে গৌরাঙ্গ পাল(৪৫) মৃত্যুর পর গতকাল সন্ধায় পজিটিভ রিপোর্ট আসে।

এরই প্রেক্ষিতে বুধবার (১৩ মে) তার পৌরসভাস্থ রাউৎ পাড়ার ভাতিজা কেশব পালের বাসা লক ডাউন করা হয়েছে।

এসময় ৭ জনের স্যাম্পল নেয় চিকিৎসকরা। গৌরাঙ্গ পাল ৮ মে রাত ১০ টায় করোনা উপসর্গ নিয়ে মারা যান।

পরে তার গ্রামের বাড়ী গাগলাজুর চৌড়া পাড়ায় তার বাড়ীটি লক ডাউন করা হয়।

বাড়ীতে থাকা গৌরাঙ্গের মা মানদা রাণী পাল (৬০), স্ত্রী রুমা পাল (৩৫), ছেলে রনির (১৪) স্যাম্পল গ্রহণ করা হয়।

বাড়ীতে গৌরাঙ্গকে চিকিৎসা দেয়ায় সংস্পর্শের জন্য দরগা হাটীর মৃত মহর আলীর ছেলে পল্লী চিকিৎসক আঃ কাইয়ুম (৪৫) এর স্যাম্পল নেয়া হয়।

নেত্রকোনা জেলার ৮৭ জন করোনা রোগীর মধ্যে মোহনগঞ্জের গৌরাঙ্গ পাল করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা যান।

তিনি দুই জায়গায় অবস্থানের জন্য আজ ১১ জনসহ মোট ১৫ জনের স্যম্পল নেয়া হয়।

গাগলাজুরের লক ডাউনে ছিলেন আর এম ও ডাঃ সুবীর সরকার, ডাঃ শাহরিয়া ওসমানী, এম, টি (ল্যাব) হাবিবুর রহমান, সাংবাদিক কামরুল ইসলাম রতন, স্বেচ্ছাসেবক জুয়েল, সাগর আহম্মদ সহ সঙ্গীয় পুলিশ বাহিনী।

গৌরাঙ্গ পাল ৭ মে গাগলাজুর থেকে শ্বাস কষ্ট নিয়ে হাসপাতালে আসলে স্যাম্পল নিয়ে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে বিদায় দেন। ৮ মে রাতে শ্বাস কষ্টে রাউৎ পাড়ায় মারা যান। ৯ মে মোহনগঞ্জ শ্বসান ঘাটে সৎকার করা হয়।

পরে ১২ মে পজিটিভ রিপোর্ট আসলে আজ বুধবার সকালে রাউৎ পাড়া স্যাম্পলসহ লক ডাউন করে বিকালে আবার গাগলাজুর চৌড়া পাড়ায় স্যাম্পল গ্রহণসহ লক ডাউন করা হয়।

শেয়য়ার করুন..

এ জাতীয় আরও সংবাদ

© All rights reserved © 2020 jonopriya.com
কারিগরি সহযোগিতায়-SHAHIN প্রয়োজনে:০১৭১৩৫৭৩৫০২ purbakantho
themesba-lates1749691102