শুক্রবার, ১৪ অগাস্ট ২০২০, ০৮:২৪ অপরাহ্ন
শিরোনাম :

‘আমি আমার আত্ম বলিদান দিয়েছি’

জনপ্রিয় ডেস্ক
  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ৭ জুলাই, ২০২০
  • ৫৪ বার পঠিত

আমি যেমন আমাকে জানি, ছিলি তেমনি সকল মানুষ নিজেকে বুঝে এবং চিনে। অর্ধশত বছরে পা রাখব আর কিছুদিন। জীবনের ব্যর্থতা ইচ্ছা আকাঙ্ক্ষা অভিজ্ঞতা প্রত্যেকটি মানুষের ন্যায় আমারও আছে।

আমি গণমাধ্যমকর্মী সাংবাদিকতা আমার পেশা নেশা। এর সাথে সামাজিক উন্নয়নের কাজ করছি উন্নয়ন কর্মী হিসেবে। উন্নয়ন কর্মকাণ্ডের সাথে জড়িত প্রায় এক যুগ। আমার প্রতিষ্ঠিত সংস্থা তার সামর্থ্য অনুযায়ী সমাজের পিছিয়ে পড়া মানুষদের নিয়ে কাজ করে যাচ্ছি।

উন্নয়নমূলক কর্মকান্ড করতে গিয়ে বাধা বিপ্তিতে পড়েছি বহুবার। তবে উন্নয়নের কাজে সহযোগিতা পেযেছি বহু সেচ্ছাসেবিদের সহযোগিতাও পেযেছি অনেকের।

অতি সম্প্রতি একটি ঘটনার বর্ণনা দিতে গিয়ে বলছি। ঘটনার সত্যতা না যেনেই সমাজের অধিকাংশ মানুষের কাছে দোষী সাব্যস্ত হতে হয়। অপরাধী সেজে যেতে হয়। এমন বিষয়টি নিয়েই বলছিলাম।

একটি বিস্ময়কর ঘটনা ঘটলো, সেই ঘটনাটি কি সমাধান করতে এগিয়ে গিয়ে যখন দোষী সাব্যস্ত হতে হয় তখন বিবেকের কাছে প্রশ্ন জাগে আমার অপরাধ কি। যখন অপরাধী না জেনেই অপরাধী করা হয় তখন খুবই কষ্টদায়ক হয় তার জন্য।

আমার জীবনের শুরু থেকেই উন্নয়ন সাংবাদিকতা নিয়ে ব্যস্ত। নেত্রকোনা জেলায় যখন কাজ করি নিয়মিতভাবে আমি পত্রিকায় লিখেছি পজিটিভ নেত্রকোনা। আমি লিখেছি গণমানুষের কথা। আমি তুলে ধরেছি নেত্রকোনার অবহেলিত মানুষের কথা।

নেত্রকোনার বহু উন্নয়নের দাবিদার হিসেবে কখনো কখনো রাস্তায় দাঁড়িয়েছি জনগণের কাতারে। আমি ব্যক্তিগতভাবে উন্নয়নে বিশ্বাসী। আমি উন্নয়ন সাংবাদিকতার বিশ্বাসী।

নেত্রকোনা জেলা প্রেসক্লাবের, নেত্রকোনার বিভিন্ন সামাজিক প্রতিষ্ঠানের সাথে জড়িত রেখেছি নিজেকে।সাংকাদিক দের অধিকার নিয়ে কথা বলেছি বহুবার এখনো বলেই যাচ্ছি।

এতটি সমস্যা বা দূর্ঘটনাকে সমাধান করতে গিয়ে এক শ্রেনীর মানুষের কাছে যখন অভিযুক্ত হলাম। আমি মানে সাংকাদিকতার উপর যখন আঘাত আসল। কুলসিত করল আমাদের মহান পেশাকে। আমার সহকর্মীগণ আহত হল আর অনেক সহকর্মী নিরব ভুমিকা রাখল।

আমি আমার কাছে প্রশ্র করলাম আমরা যারা মহান পেশায় আছি আমরা এভাবেই নিজেদেরকে আত্মবলিদান দিছি। আমার সহকর্মীদের কাছে ঘটনার পিছনে কি ঘটনা ছিল।

সাংবাদিকতার পেশা এত কুলসিত হযেছে যে আমরা নিজেদের প্রশ্র করতে পারছিনা আমরা আমাদের জন্য কি করছি।

আমরা সংবাদকর্মী, উন্নয়নকর্মী আমরাও আইনের উর্ধ্বে নই। আমরা আইনকে শ্রদ্ধা করি সম্মান করি। একজন সুনাগরিকের উচিত আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হওয়া। একটি দুর্ঘটনা বা একটি ঘটনার পিছনে কি তাও জানার প্রয়োজন একজন সচেতন নাগরিকের।

আমাদের প্রয়োজন আমাদের পেশা কি আরও উন্নয়ন, যেহেতু জাতির চতুর্থ স্তম্ভ গণমাধ্যম, আমাদেরও উচিত আত্মশুদ্ধি। আমাদের প্রয়োজন আমাদের স্বার্থেই জনগণের স্বার্থেই এই পেশাটির সুনাম ধরে রাখা।

যদিও আমরা আমরা নিজেরাই আত্মবলিদান দিচ্ছি। আসুন আমরা আত্মশুদ্ধি করি। রাষ্ট্র ও জনগণের কাজ করি। আমি চাইনা আমার মত আত্ম বলিদান যেন কারো না হয।

দিলওয়ার খান, লেখক সিনিয়র সাংবাদিক, উন্নয়নকর্মী।

শেয়য়ার করুন..

এ জাতীয় আরও সংবাদ




© All rights reserved © 2020 jonopriya.com
কারিগরি সহযোগিতায়-SHAHIN প্রয়োজনে:০১৭১৩৫৭৩৫০২ purbakantho
themesba-lates1749691102